আপনার কোনো ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট থাকলে “All-in-One WP Migration” প্লাগইন ব্যবহার করে সহজেই তা মাইগ্রেশন করতে পারেন। “All in One WP Migration” টুলসটি ব্যবহার করে আপনার সমস্ত ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট কিভাবে অন্য প্রোভাইডার থেকে আইটি নাট হোস্টি-এ মাইগ্রেশন করবেন তা নিয়ে আলোচনা করা হলোঃ 

১. ওয়ার্ডপ্রেস এডমিন ড্যাসবোর্ডে লগ ইন করুন।

২. Plugins থেকে “Add New” বাটনে ক্লিক করুন।

৩.সার্চ বারে “All-in-One WP Migration” প্লাগইনটি সার্চ করে “Install Now” বাটনে ক্লিক করুন। ইনস্টলেশন শেষ হয়ে গেলে “Activate” বাটনে ক্লিক করুন।

install all in one wp migration

৪. এখন All-in-One WP Migration মেনুতে গিয়ে “Export”-এ ক্লিক করুন। নতুন পেইজে “Export To” বাটনে ক্লিক করার পর “File” অপশনে ক্লিক করুন।

export to file

৬.আপনার ব্যাকআপ প্রোগ্রেসটি স্ক্রিনে দেখতে পাবেন এবং ব্যাকআপ শেষ হলে, সেই উইন্ডো থেকে ব্যাকআপ ফাইলটি ডাউনলোড করুন। 

৭.পরবর্তীতে এই ব্যাকআপটি “All-in-One WP Migration” থেকে “Backups” অপশনে গিয়ে অ্যাক্সেস করতে পারবেন।

ব্যাকআপটি ডাউনলোড করার পর, এখন আপনার ডোমেইনে একটি নতুন ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল করুন। আপনি যদি ডাউনটাইম এড়াতে চান, তবে ডোমেইন নেমসার্ভার পরিবর্তন না করে, কম্পিউটারের হোস্ট ফাইল ব্যবহারে মাধ্যমে আপনার ডোমেনটিকে আমাদের সার্ভারে পয়েন্ট করতে পারেন।
কিভাবে কম্পিউটারের হোস্ট ফাইল ব্যবহার করে ডোমেইনকে আমাদের সার্ভারে পয়েন্ট করবেন?
এটি আপনার লোকাল কম্পিউটারে একটি অস্থায়ী রেকর্ড হবে। যখন আপনি ডোমেনটিতে যাবেন, আপনাকে আগের হোস্টিংয়ের পরিবর্তে আপনার নতুন হোস্টিংয়ে নেওয়া হবে। বাকি সবাই কোনো ডাউন টাইম বা সমস্যা ছাড়াই আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারবে।
আইটি নাট হোস্টিংয়ে আপনার ডোমেনটিকে পয়েন্ট করে এতে ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল করার পরে, এই নির্দেশাবলী অনুসরণ করুনঃ

১. আগের মতো করে All-in-One WP Migration ইনস্টল করুন।

২.  All-in-One WP Migration থেকে Import এ যান । তারপরে “IMPORT FROM” বাটনে  ক্লিক করুন এবং তালিকা থেকে “File” এ ক্লিক করুন।

৩. আগের ডাউনলোড করা অংশ থেকে ব্যাকআপটি ব্রাউজ করে ওপেন করুন। 

 ৪. এখন স্ক্রিনে আপলোডিং বারে প্রোগ্রেসটি দেখতে পাবেন। একবার আপলোড হয়ে গেলে আপনাকে এলার্ট করা হবে যে আপনি একবার ব্যাকআপটি রিস্টোর করেছেন, সেই ওয়ার্ডপ্রেসের বর্তমান সব ডাটা নষ্ট হয়ে যাবে। যেহেতু আপনি এখানে নতুন ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল করেছেন, সুতরাং রিস্টোর করতে “Proceed” বাটনে ক্লিক করুন।

proceed restore

৫. ইনস্টলেশন শেষ হলে, আপনি এই রকম স্ক্রিন দেখতে পাবেনঃ

imported successfully

Finish> বাটনে ক্লিক করুন। যদি কোন পেইজে এমন মেসেজ “Database Update Required” দেখায় তবে “Update WordPress Database” বাটনে ক্লিক করুন। এবং আপডেট করার পর আবার লগ ইন করুন।

শেষ পদক্ষেপের জন্য, Settings থেকে Permalinks এ যান এবং “Save Changes” বাটনে দু’বার ক্লিক করুন।

আপনার ওয়েবসাইট মাইগ্রেশন সম্পূর্ণ হয়েছে। হোমপেজটি ভিজিট করে দেখে নিন সবকিছু কাজ করছে কিনা।

 তারপরে আপনার উইন্ডোজ হোস্ট ফাইল থেকে ম্যানুয়াল এন্ট্রি সরিয়ে ফেলুন। আমাদের হোস্টিং সার্ভারে পয়েন্ট করার জন্য আপনার ডোমেইনের নেমসার্ভারটি পরিবর্তন করুন। 

এইভাবেই কোন ডাউনটাইম ছাড়াই আপনার ইউজারদের জন্য সফলভাবে আপনার ওয়েবসাইটটি মাইগ্রেশন করতে পারেন।

দুটি সিপ্যানেলের মধ্যে ওয়েবসাইট মুভ করার সময় যে বিষয়গুলি মনে রাখা জরুরী  (এবং উভয়ই এই সিপ্যানেল আইটি নাট হোস্টিংয়ে রয়েছে)

দুটি সিপ্যানেল অ্যাকাউন্টের মধ্যে আপনার ওয়েবসাইট মুভ করতে চাইলে এবং সেই দুটি সিপ্যানেল অ্যাকাউন্টই আইটি নাট হোস্টিং-এ হোস্ট করা থাকলে। মনে রাখা জরুরী, একটি ডোমেইনের জন্য দুটি DNS এন্ট্রি করা যায় না। অর্থাৎ আপনার ডোমেইনটি আগের সিপ্যানেল অ্যাকাউন্ট থেকে সরিয়ে নতুন সিপ্যানেল অ্যাকাউন্টে যুক্ত করতে হবে। অ্যাডন ডোমেইন একইভাবে মুভ করতে, নিচের পদক্ষেপগুলো অনুসরণ করুনঃ 

১. আগের সিপ্যানেল অ্যাকাউন্টে লগইন করুন। ফাইল ম্যানেজার থেকে ওয়েবসাইটের ফাইলগুলোর সম্পূর্ণ ব্যাকআপ নিন এবং ডাটাবেস ব্যাকআপগুলো ডাউনলোড করুন। আপনার ওয়েবসাইটটি ওয়ার্ডপ্রেস হলে “All-in-One WP Migration” প্লাগইন, “WPvivid” বা অন্য কোন প্লাগইন ব্যবহার করে উপরের নির্দেশাবলি অনুসরণ করে ব্যাকআপ নিতে পারেন।

২. নতুন সিপ্যানেল অ্যাকাউন্টে লগ ইন করুন। ফাইল ম্যানেজার ব্যবহার করে ব্যাকআপ ফাইলটি যথাস্থানে আপলোড করুন।

৩. পুরাতন সিপ্যানেল অ্যাকাউন্ট থেকে অ্যাডন ডোমেইন রিমুভ করুন।

৪. নতুন সিপ্যানেল অ্যাকাউন্টে একটি নতুন অ্যাডন ডোমেইন তৈরি করুন।

৫. আপনার ব্যাকআপ রিস্টোর করে ভেরিফাই করুন। 

বিঃদ্রঃ যদি ডোমেইনটি অ্যাডন ডোমেইন না হয় এবং এটি সিপ্যানেলের প্রাইমারী ডোমেইন বা নতুন সিপ্যানেলে এটি প্রাইমারী ডোমেইন হিসাবে যুক্ত করতে চান, তাহলে এই বিষয়ে আমাদের সাপোর্টে জানালে আমরা আপনার প্রাইমারী ডোমেইনটি পরিবর্তন করে দিব।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn