অনলাইন প্লাটফর্মে বিভিন্ন ধরণের কর্ম সম্পাদন করতে  ওয়েবসাইট একটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, ওয়েবসাইট গুলোর একটি নিজস্ব CMS অর্থাৎ Content Management System থাকে। এর মধ্যে সবথেকে প্রসিদ্ধ এবং বহুল ব্যবহৃত CMS গুলো হলোঃ WordPress, Joomla, Magento, ইত্যাদি। এই সকল CMS এর মধ্য সবথেকে বেশি ব্যবহৃত প্রায় ৩৭% Website এ ব্যবহার হয় WordPress CMS।

image3 5

WordPress CMS ব্যবহার করার সবথেকে ভালো সুবিধা হল যে এটি কাস্টমাইজেবল অর্থাৎ আপনি ঠিক যেমন চান তেমন করে এই CMS কে কনফিগার করে ব্যবহার করতে পারেন। আপনার ইচ্ছামত প্লাগইন ব্যবহার করতে পারেন এর বিভিন্ন ফাংশনালিটি বাড়াতে। যেহেতু একটি ওয়েবসাইটের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল ওয়েবসাইট টি ফাস্ট লোড হওয়া। তাই যত বেশি অপ্টিমাইজ করে ওয়ার্ডপ্রেস সাইট তৈরি করা হবে এটি তত ভালো ভাবে এবং তত ফাস্ট লোড হবে।

যেহেতু অনেক বেশি পরিমান সাইট ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে তৈরি করা হয় এবং এই সাইট গুলো তৈরি করার জন্য তেমন কোন কোডিং দক্ষতা এর প্রয়োজন হয় না। তাই ডেভ্লপাররা অনেক সময় সময় সাইট এর অপটিমাইজেশন এর দিকে তেমন কোন নজর দেন না অথবা এমন হতে পারে সাইট টি আপনি নিজে তৈরি করছেন। 

আপনার যদি একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট থেকে থাকে তাহলে আপনি খুব সহজেই নিচের পদক্ষেপগুলো অনুসরণ করে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট অপটিমাইজ করতে পারবেন।

image4 5

High Speed এবং Transparent হোস্টিং ব্যাবহার করা

একটি ওয়েবসাইটের অপটিমাইজেশন যেমন সিএমএস এবং থিমের উপর নির্ভর করে ঠিক তেমনি একটি হোস্টিং অথবা হোস্টিং প্রভাইডারের উপরও সম ভাবে নির্ভর করে অর্থাৎ আপনার ব্যবহৃত হোস্টিং যদি ফাস্ট অথবা ট্রান্সপারেন্ট না হয় সে ক্ষেত্রে আপনার ওয়েবসাইট যতই অপটিমাইজ হোক না কেনো আপনি সেখানে সেরকম কোন  পারফরম্যান্স পাবেন না যেটা আপনি একটি ফাস্ট স্পীড হোস্টিং অথবা ট্রান্সপারেন্ট হোস্টিং থেকে পাবেন। তাই আপনার হোস্টিং ক্রয় করার সময় এই জিনিসটা মাথায় রাখতে হবে যে আপনি যে হোস্টিংটি ক্রয় করতে চান সেটি কতটা ফাস্ট অথবা তারা আপটাইম সার্ভিস প্রদানে কত টা বদ্ধপরিকর। এজন্য খরচ একটু বেশি হলেও ভালো এবং প্রতিষ্ঠিত কোম্পানি থেকে সার্ভিস নেওয়া উচিৎ।

image2 7

সব সময় WordPress এর Latest আপডেট ব্যবহার করা

যেহেতু ওয়ার্ডপ্রেস একটি ফ্রি এবং বহুল ব্যবহৃত একটি সিএমএস তাই WordPressকে আরো ইউজার ফ্রেন্ডলি করতে নতুন এবং অপটিমাইজ কোডের আপডেট আসে যা আপনার হোস্টিংয়ের সিপিইউ কম ব্যবহার করে আর স্বাভাবিক ভাবেই সিপিইউ এর ব্যবহার কম হলে অবশ্যই একটি সাইট আরো ভালো পারফমেন্স করবে । তাই সব সময়ই ওয়ার্ডপ্রেসের লেটেস্ট আপডেট ব্যবহার করা ওয়েবসাইটের ভালো পারফর্মেন্সের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

image1 5

প্লাগিন নির্বাচনের সময় সতর্ক থাকা

যারা ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করেন তারা ইতিমধ্যেই জানেন যে plug-in একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। প্লাগিন যেমন আপনার ওয়েবসাইটের গতি বাড়াতে সাহায্য করে ঠিক তেমনি আপনার ওয়েবসাইটের ক্ষতির কারন হতে পারে। তাই অবশ্যই আপনাকে প্লাগিন নির্বাচন করার সময় এটা মাথায় রাখতে হবে , আপনি যে plug-in টি ব্যবহার করতে চাচ্ছেন সেটি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য কতটা সুবিধার হবে। অপটিমাইজেশনের জন্য বেশি প্লাগিন ব্যবহার না করে যে কাজ ওয়েবসাইটে কোডিং এর মাধ্যমে করা সম্ভব সেটা কোডিং এর মাধ্যমে করাই শ্রেয়। এবং যে প্লাগিনগুলো ওয়েবসাইটের ক্ষতি করছে সে গুলোকে শনাক্ত করে রিমুভ করা। এর সাথে প্লাগিন নির্বাচনের সময় অবশ্যই উন্নত মানের প্লাগিন নির্বাচন করতে হবে।

image5 5

Web Crawling এবং বটকে লিমিট রাখা

ওয়েব Crawling প্রায়ই ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের জন্য রিসোর্স সমস্যা সৃষ্টি করে। অর্থাৎ একটি ওয়েবসাইটে ওয়েব Crawing এবং বট বেশি পরিমাণ হয়ে গেলে ওয়েবসাইটটি সব সময় Crawling এর ওপরে থাকে যা ওয়েবসাইটের হোস্টিং রিসোর্স এর উপর ইম্প্যাক্ট করে। এর কারণ স্বরূপ অনেক সময় ভিজিটর ওয়েবসাইটটি লাইভ পায় না বা লোডিং বেশি সময় ধরে হয়। তাই Crawling এবং বটকে লিমিট রেখে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট টি আরো ভালো অপটিমাইজেশন করা সম্ভব।  Robot.txt ফাইল ব্যবহার করে ওয়েব ব্রাউজার এবং বট লিমিট করা সম্ভব। এ সম্পর্কে অন্য কোন একটি পোস্ট এ বিস্তারিত জানানো হবে।

image6 4

SEO ফ্রেন্ডলি থিম নির্বাচন করা

কখনও কখনও একটি থিমের কোডিং একটি ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে বিভিন্ন সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। বিভিন্ন সময় সাইট এ কোন আপডেট বা কোন পরিবর্তন করার পর কোন ত্রুটি পরিলক্ষিত হলে তা রিমোভ করার প্রয়োজন পরে। সাইট কোন এরোর পেলে তা যেকোনো সময় রিসোর্স ব্যবহার বাড়িয়ে দিতে পারে, যা কোন সাইট কে ডাউন করতে পারে। সাইট এর এরোর পরীক্ষা করার সহজ। আপনি সহজেই ওয়ার্ডপ্রেসে এরোর  লগ অথবা হোস্টিং প্রোভাইডার থেকে পাওয়ার রিসোর্স মনিটরে এই বিষয়টি চেক করতে পারেন। একটি ভালো এবং সুন্দর কোডিং এর থিম আপনার ওয়ার্ডপ্রেস এর অপটিমাইজেশন আরো বেশি বাড়িয়ে দেয় তাই থিম পছন্দ করার আগে অবশ্যই দেখে বা পরীক্ষা করে নেওয়া উচিৎ আপনার  থিমটি SEO ফ্রেন্ডলি কিনা এবং থিমে কোডিং এর কোন সমস্যা রয়েছে কিনা বিষয়টি চেক করবেন এবং যদি কোনো সমস্যা থেকে থাকে সে ক্ষেত্রে আপনি থিমের ডেভেলোপারের সাথে কথা বলে সে সমস্যাটির সমাধান করতে পারেন অথবা নতুন থিম নির্বাচন করতে পারেন।

ওপরে দেখানো পরিবর্তনগুলো আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট অপটিমাইজেশনে আপনাকে সহযোগিতা করবে। তবে আমাদের সাজেশন থাকবে আপনি যদি এ সম্পর্কে কম জেনে থাকেন অথবা আপনি এ সম্পর্কে নতুন হন তাহলে অবশ্যই আপনি কোন ডেভলপারের সাথে যোগাযোগ করুন এবং আপনার ওয়েবসাইট অপটিমাইজেশন নিয়ে আপনার থিম অপটিমাইজেশন নিয়ে তাদের সাথে কথা বলতে পারেন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn